অমিতাভ-শাহরুখের পাশে চঞ্চল, নিজের কমিটির সফলতা বলছেন নিপুণ

Share Now..

‘এখন আমিই ৮-১০টি সিনেমায় কাজ করছি। তার মানে কি? আমার হাতেই যদি এই পরিমাণ কাজ থাকে তাহলে নতুন যারা কাজ করছে তাদের হাতে তো টাইমই নেই। ২০ বছর আগে বাংলাদেশ চলচ্চিত্রে আপনারা যা দেখেছেন এখন তার চেয়ে অনেক বেশি পাবেন। কারণ, আপনারা দেখেছেন অনেক বছর পর কলকাতা আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবে বলিউডের সেরা তারকাদের সঙ্গে বাংলাদেশের অভিনয়শিল্পী দাঁড়িয়েছে। এটা আমাদের অর্জন।’মহান বিজয় দিবস উপলক্ষে শুক্রবার (১৬ ডিসেম্বর) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে এফডিসিতে জাতির পিতার প্রতিকৃতিতে ফুল দিয়ে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক নিপুণ আক্তার এসব কথা বলেন। এসময় শিল্পী সমিতির সহ-সাধারণ সম্পাদক সাইমন সাদিক, সাংগঠনিক সম্পাদক শাহানুর, চিত্রনায়িকা, অঞ্জনা রহমান, চিত্রনায়ক ওমর সানীসহ চলচ্চিত্রের অনেকেই উপস্থিত ছিলেন।শিল্পী সমিতির নির্বাচনের এক বছর পেরিয়ে গেলো। এই এক বছরে আপনাদের সফলতা কি? এমন প্রশ্নের জবাবে নিপুণ বলেন, ‘এক বছবের সফলতা আপনাদের চোখের সামনে। এতো বছর অমিতাভ বচ্চন, শাহরুখ খানের পাশে বাংলাদেশের কোনো শিল্পী দাঁড়ায়নি। গতকাল কিন্তু বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের হয়ে চঞ্চল চৌধুরী তাদের পাশে দাঁড়িয়েছে।’

কিন্তু চঞ্চল চৌধুরী কিন্তু এফডিসি কেন্দ্রিক না। এমন প্রশ্নে কিছুটা বিরক্ত নিপুণ। বললেন, ‘এই বিষয়টি নিয়ে মানুষ শুধু শুধু দ্বন্দ্ব তৈরি করে। চঞ্চল চৌধুরী কি একবারও বলেছে- আমি জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার নেবো না। উনি কিন্তু ওখানে (কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব) গিয়ে বলেছেন- আমি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র থেকে এসেছি। উনি বলেন নি যে- আমি বাংলাদেশ টিভি থেকে এসেছি। এই ধরণের দ্বন্দ্ব দয়া করে আর কেই তৈরি করবেন না। অভিনয়ে শিল্পীদের মধ্যে ভাগাভাগির কিছু নেই।’

নিপুণ বলেন, ‘আমি চঞ্চল চৌধুরীর সিনেমার প্রমোশন করেছি। ওনারা টিভির আর আমি ফিল্মের এমন চিন্তা তো আমার মাথা কখনো আসেনি। আমার সিনেমা যেখানে দেখানো হয় তাদের সিনেমাও তো সেই স্ক্রিনে দেখানো হয়। এরপর থেকে যে এমন দ্বন্দ্ব তৈরি করতে চাইবে আমি তার বিষয়ে তথ্য মন্ত্রণালয়ে অভিযোগ করবো।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *