অশালীন কুরুচিপূর্ণ ভাষায় নাটক নির্মাতা কবির বিন সামাদ’র বিরুদ্ধে লিগ্যাল নোটিশ

Share Now..

আফজাল হোসেন চাঁদ : অশালীন কুরুচিপূর্ণ ভাষায় বক্তব্য দিয়ে নাটক তৈরি করায় ঠিকানা টিভির পরিচালক যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার একাধিক গুণে পরিচিত, বিশিষ্ট মিডিয়া ব্যক্তিত্ব, বক্তা, শিল্পী, অভিনেতা কবির বিন সামাদ’র বিরুদ্ধে লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন যশোরের জর্জ কোর্টের আইনজীবী আমিনুর রহমান হিরু। কবির বিন সামাদ যশোর জেলার ঝিকরগাছা উপজেলার গঙ্গানন্দপুর ইউনিয়নের নবগ্রামের মৃত আঃ সামাদ মাস্টার’র ছেলে।
সম্প্রতি গত ১২ সেপ্টেম্বর শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়া হয়েছে। এই বিষয় নিয়ে মাষ্টার মশাইয়ের ভোঁ দৌড় শিরোনামে একটি নাটক তৈরি করে ঠিকানা টিভি ডটকম নামের একটি অনলাইন পেজে। ছাত্র ও কৃষকদের নিয়ে অবমাননাকর ভিডিওতে আপত্তিকর কিছু বাক্য ব্যবহার করা হয়। যেখানে ছাত্র ও কৃষক সমাজকে মানহানি ও চরম অবমাননা করেছে বলে দাবি করেছেন ঝিকরগাছা দারুল উলুম কামিল মাদ্রাসার সিনিয়র শিক্ষক ও অরাজনৈতিক সংগঠন সেবা এর সভাপতি মাস্টার আশরাফুজ্জামান বাবু। তিনি ছাত্রদের অত্যান্ত অশালীন ভাষায় সম্বোধন করার বিষয়টি মেনে নিতে পারেনি। সেই জন্য তিনি কবির বিন সামাদ কে সাবধান করার জন্য ২২ সেপ্টেম্বর বুধবার লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়েছেন যশোরের জর্জ কোর্টের আইনজীবী আমিনুর রহমান হিরুর মাধ্যমে। তিনি (যশোরের জর্জ কোর্টের আইনজীবী আমিনুর রহমান হিরু) লিগ্যাল নোটিশে ‘মাস্টার মশাইয়ের ভো-দৌড়’ শিরোনামের ওই ভিডিওতে আপত্তিকর কিছু বাক্য ব্যবহার করা হয়েছে। সেটা ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন-২০১৮ অনুযায়ী শাস্তিযোগ্য অপরাধ। যার জন্য তাকে (কবির বিন সামাদ) লিগ্যাল নোটিশ পাঠিয়ে ভিডিও মুছে ফেলতে এবং পরবর্তীতে এমন ভিডিও প্রচার না করার আহ্বান জানিয়েছেন। অন্যথায় তাহার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে উল্লেখ করেন এ আইনজীবী।
ঘটনার বিষয়ে কবির বিন সামাদ বলেন, আমাদের কনসেপ্টে আমরা আঞ্চলিক ভাষা আমরা ব্যবহার করি। আমাদের ভিডিওতে ছাত্র ও শিক্ষকের মধ্যে আঞ্চলিক ভাষা ব্যবহার করা হয়েছে। সেখানে বর্তমান সময়ে মানুষের কাছে দৃষ্টিকটুর বলা যায়। তবে আমরা যখন এটা করেছিলাম সেই সময় আমাদের এমনটা মনে হয়নি। যখন তারা আমাদের বলল তখন আমরা বুঝলাম যে আমাদের শব্দ চয়ন ভূল হয়েছে। এখন তো মানুষ দিনদিন আপডেট হচ্ছে। এখন বুঝতে পেরেছি সমস্যা হয়েছে। বর্তমানে সমস্যাকৃত ভিডিওটি তুলে নেওয়া হয়েছে। শিক্ষকদের মানহানী করে তো আমরা কিছু করবো এটা তো হতে পারে না। আমরা আগামী দিনগুলোতে সর্তক থাকবো। আমরা সাধারণত ভাবতাম আমাদের ভিডিও হাঁসি, ঠাট্টা ও তামশার মধ্যে সিমাবদ্ধ। আমরা আগামী সময়ে কেউ ব্যথা পায় এমন ভিডিও তৈরী থেকে বিরত থাকবো। আজকের পরবর্তী সময়ের পরে আমি আর এমন শব্দ ব্যবহার কোন ভিডিও তৈরী করবো না।

Leave a Reply

Your email address will not be published.