আ’লীগের এক গ্রুপ কুপিয়ে জখম করলো আরেক গ্রুপের ৪ জনকে

Share Now..


স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহঃ
সামাজিক দলে যোগ না দেওয়ায় ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মধুপুর গ্রামে একই পরিবারের ৪ জনকে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষরা। আহতরা ও হামলাকারী উভয় আওয়ামীলীগের সমর্থক হওয়ায় এ নিয়ে এলাকায় উত্তেজনা বিরাজ করছে। আহতরা হলেন মধুপুর গ্রামের হাসমত মৌহুরী, তার ছেলে সাইফুল ইসলাম, মাহবুল আলম ও স্ত্রী হামিদা বেগম। তাদেরকে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। হামলাকারীরা সদর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক শহিদুল ইসলাম হিরণ গ্রুপের সমর্থক বলে মাতুব্বর গিয়াস উদ্দীন অভিযোগ করেন। এজাহার সূত্রে জানা গেছে, দীর্ঘদিন ধরেই হিরণ গ্রুপের লোকজন তাদের দলে যোগদান করার জন্য চাপ দিয়ে আসছিলো। কিন্তু তারা যোগদান করবেন না বলে জানালে শনিবার সন্ধ্যা রাতে বাড়ির মধ্যে দেশীয় অস্ত্রসস্ত্র নিয়ে ঢুকে তাদের কুপিয়ে জখম করে। হামলার নেতৃত্ব দেয় আহাদ আলীর ছেলে আব্দুল মজিদ, আব্দুল আজিজ, মাফেজ উদ্দিন, ছেলে সুমন, মৃত ওসমানের ছেলে মনিরুল, মৃত গফুর শাহার ছেলে ইউনুছ, মৃত তেছেম মোল্যার ছেলে মিলন মোল্যা ও মৃত মনু মোল্যার ছেলে আজিজুরসহ অজ্ঞাত আরও ১০-১২ জন। হামলার পর তারা শেখ হাসমত মৌহুরীর বাড়িতে লুটপাট চালায় ও একটি মটরসাইকেল ভাংচুর করে বলে এজাহারে উল্লেখ করা হয়। চাপাতির কোপে হামিদা বেগমের মাথায় ১৪টি সেলাই দিতে হয়েছে। এ ঘটনায় রোববার বিকালে মাহবুল আলম বাদি হয়ে থানায় মামলা করেছেন। ঝিনাইদহ সদর থানার ডিউটি অফিসার এসআই এমদাদ জানান, সদর থানার মধুপুর গ্রামের মাহাবুল আলম মারামারি সংক্রান্ত বিষয়ে একটি এজাহার দিয়েছেন। এই ঘটনায় এখনও কেউ গ্রেফতার হয়নি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *