ইউনিলিভার কনজ্যুমার কেয়ার লিমিটেডের ৫১তম এজিএম অনুষ্ঠিত

Share Now..

\ মোঃ রফিকুল ইসলাম জোমাদ্দার মিলন ঢাকা থেকে \
ইউনিলিভার কনজ্যুমার কেয়ার লিমিটেড এর ৫১তম বার্ষিক সাধারণ সভা (এজিএম) অনুষ্ঠিত হয়েছে। মঙ্গলবার (১৪ মে) সকাল ১১টায় অনুষ্ঠিত এ সভায় শেয়ারহোল্ডাররা বিগত বছরের (২০২৩ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত) ডিরেক্টরস রিপোর্ট, অডিটরস রিপোর্ট ও অডিটেড ফাইনান্সিয়াল স্টেটমেন্ট অনুমোদন করেছেন। এছাড়া, সভায় মোট ৩০০ শতাংশ চূড়ান্ত লভ্যাংশ ঘোষণা করা হয়। বাংলাদেশ সিকিউরিটিজ এক্সচেঞ্জ কমিশনের নির্দেশনা অনুসরণ করে ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে এই এভিএম অনুষ্ঠিত হয়েছে। কোম্পানির চেয়ারম্যান মাসুদ খানের সভাপতিত্বতে সভায় ডিরেক্টরদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মো. জাভেদ আখতার, জিনিয়া তানজিনা হক, এস ও এম রাশেদুল কাইউম, মো. আবুল হোসাইন, রেজাউল হক চৌধুরী। এছাড়া কোম্পানি সেক্রেটারি মোহাম্মদ নাহারুল ইসলাম মোল্লা, কোম্পানির স্ট্যন্ডুটরি অডিটর ও ইনডিপেনডেন্ট স্কুটিনাইজারসহ উল্লেখযোগ্য শেয়ার হোল্ডারও ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মের মাধ্যমে সভায় অংশগ্রহণ করেন। ইউনিলিভার কনজ্যুমার কেয়ার লিমিটেড এর চেয়ারম্যান মাসুদ খান বলেন, ‘বৈশ্বিক ব্যবসার অংশ হিসেবে ২০২৩ সালে আমাদের কোম্পানিকে অনেক ভূরাজনৈতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলা করতে হয়েছে। যে কারণে এ বছরে মোট মুনাফা কমেছে। তবে ব্যবসায়িক প্রতিক‚ল পরিস্থিতি কাটিয়ে আমরা নিট মুনাফা বাড়াতে সক্ষম হয়েছি। ২০২২ সালের তুলনায় ২০২৩ সালে নিট মুনাফা বেড়েছে ৬ দশমিক ৫ শতাংশ। অভ্যন্তরীণ অনেক সীমাবদ্ধতা থাকা সত্বেও ২০২৩ সালের জন্য কোম্পানি ৩০০ শতাংশ নগদ চূড়াপড় লভ্যাংশ ঘোষণা করেছে।” তিনি আরো বলেন ‘সা¤প্রতিক বছরগুলোতে বাংলাদেশ মাইক্রোনিউট্রিয়েন্ট বা অনুপুষ্টিকণা ঘাটতি মোকাবেলায় জোর প্রদান এবং মা ও শিশুর সুস্বাস্থ্যের বিষয়ে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি কাজ করেছে। আমাদের ফ্ল্যাগশিপ ব্র্যান্ড হরলিকসের মাধ্যমে ২০৩০ সালের মধ্যে পুষ্টিহীনতা দূরকরণ ও ভিশন ২০৪১ এ স্বাস্থ্যখাতে উল্লেখযোগ্য লক্ষ্য অর্জনে সরকারের যে ভিশন সেটি বাস্তবায়নে আমাদের লক্ষ্য।” সহযোগিতা করতে আমরা প্রতিশ্রæতিবদ্ধ। স্বাস্থ্য বিষয়ে সচেতন বাড়ানোর মাধ্যমে সুস্থ ও টেকসই জাতি গঠনে ভূমিকা রাখাই দেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় নিত্যব্যবহার্য ও ভোগ্যপণ্য (এফএমসিজি) প্রস্তুতকারী কোম্পানি ইউনিলিভার কনজ্যুমার কেয়ার লিমিটেড (ইউসিএল) ১৯৭৪ সাল থেকে বাংলাদেশে কার্যক্রম চালিয়ে আসছে। চার দশকের অসাধারণ পথচলায় দেশের স্বাস্থ্য- খাদ্য-পানীয় ক্যাটাগরিতে ইউসিএল শক্তভাবে শীর্ষস্থান ধরে রেখেছে। ইউসিএলের পোর্টফোলিওতে অস্তর্ভুক্ত রয়েছে হরলিক্স, মালটোকা, বুস্ট, গøকোম্যাক্স-ডি এর মতো আন্তর্জাতিক ব্র্যান্ড। ইউনিলিভারের বৈশ্বিক টেকসই লক্ষ্যমাত্রা হলো প্লাস্টিক, প্রকৃতি, জলবায়ু ও মানুষের জীবনযাত্রার মান উন্নতি করা। বৈশ্বিক প্রতিশ্রæতির অংশ হিসেবে বাংলাদেশের জন্য বর্জ্যমুক্ত ভবিষ্যৎ গঠনের পাশাপাশি টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) অর্জন বিশেষ করে ক্ষুধা নির্মুল (এসডিজি ২) এবং সুস্বাস্থ্য ও কল্যাণের (এসডিজি ৩) বিষয়ে অগ্রগতি অর্জন করছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *