ইন্দোনেশিয়ার ভূমিকম্পে মৃত্যু বেড়ে ২৬৮, নিখোঁজ ১৫১

Share Now..


ইন্দোনেশিয়ায় ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর এখনো উদ্ধারকার্য চলছে। মৃত্যু বেড়ে হয়েছে ২৬৮। এখনো নিখোঁজ রয়েছেন ১৫১ জন। আহত হয়েছেন হাজারের বেশি। ডয়চে ভেলের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়।প্রতিবেদনে বলা হয়, ভূমিকম্পে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে পশ্চিম জাভা। বাড়িঘর ভেঙে গেছে, রাস্তায় বিশাল ফাটল পড়েছে। বিশাল এলাকাজুড়ে কেবল ধ্বংসের ছবি। দুই রাত কেটে যাওয়ার পরও উদ্ধারকারীদের কাজ শেষ হয়নি। তারা এখনো উদ্ধারকাজ চালিয়ে যাচ্ছেন ১৫১ জন নিখোঁজের সন্ধানে।যখন ভূমিকম্প হয় তখন ১৪ বছর বয়সী আপ্রিজাল স্কুলে ছিল। ভূমিকম্পের পর স্কুলবাড়ি ভেঙে পড়ে। তার দুই পা ঢেকে যায় ধ্বংসস্তূপে। তার বন্ধু জুলফিকার তাকে উদ্ধার করে। কিন্তু পরে জুলফিকারের উপর ধ্বংসস্তূপ পড়ে যায় এবং সে মারা যায়। ভূমিকম্প-বিধ্বস্ত এলাকা ঘুরলে এরকম অনেক মর্মান্তিক কাহিনীই শোনা যাচ্ছে।

জাতীয় বিপর্যয় মোকাবিলা কমিটি জানিয়েছে, ২২ হাজার বাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ৫৮ হাজার মানুষকে নিরাপদ জায়গায় নিয়ে যাওয়া হয়েছে। পশ্চিম জাভার কিয়ানজুরের পাহাড়ি এলাকায় ভূমিকম্পের পর ধস নামে। এত দ্রুত এই ঘটনা ঘটেছে যে মানুষ নিরাপদ জায়গায় যাওয়ার সুযোগ পাননি।

ভূমিকম্পের পর ডজনখানেক আফটারশক হয়েছে। তাতে দুর্বল বাড়ি ভেঙে পড়েছে। এক সামরিক অফিসারের বরাত দিয়ে বিবিসি জানিয়েছে, ‘একটা দোতলা বাড়ি ভেঙে পড়েছে। আমরা মানুষের দেহ দেখতে পাচ্ছি। কিন্তু দেহ বের করতে কংক্রিটের দেওয়াল ভাঙতে হচ্ছে। তাতে সময় লাগছে।’
৪৮ বছরের কুকু রয়টার্সকে জানিয়েছেন, তিনি দুই শিশুকে ধ্বংসস্তূপ থেকে বের করে এনে বাঁচিয়েছেন। একজন এখনো নিখোঁজ। তিনি জানিয়েছেন, প্রচুর মানুষের দেহ হাসপাতালে পড়ে আছে। সেখানে ভয়ংকর ভিড়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *