কানসৈকতে বিনামূল্যে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস নাইন’

Share Now..

কান চলচ্চিত্র উৎসবের যেকোনো আয়োজন উপভোগ করতে ইনভাইটেশন টিকিট কিংবা অ্যাক্রেডিটেশন ব্যাজ লাগে। কেবল একটি জায়গা সবার জন্য উন্মুক্ত থাকে। উৎসবের প্রাণকেন্দ্র পালে দে ফেস্টিভাল ভবনের অদূরে মাচি সৈকতে এই আয়োজনের নাম ‘সিনেমা ডি লা প্লাজ’ তথা বিচ সিনেমা। এতে এবারের অন্যতম আকর্ষণ ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস নাইন’। ৭৪তম কানে এর ইউরোপিয়ান প্রিমিয়ার হবে।

আগামী ১২ জুলাই রাত ৯টা ৩০ মিনিটে খোলা আকাশের নিচে বড় পর্দায় দেখানো হবে জাস্টিন লিন পরিচালিত ‘এফ নাইন: দ্য ফাস্ট সাগা’। ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস’ ফ্র্যাঞ্চাইজির এই দশম কিস্তিতেও রয়েছে হলিউড তারকা ভিন ডিজেল ও তার বাহিনীর দুরন্ত কিছু স্টান্ট এবং উদ্দাম গাড়ি চালানোর দৃশ্য। প্রতিকূল আবহাওয়ার কারণে ১২ জুলাই প্রদর্শনী বাতিল হলে ১৩ জুলাই কানসৈকতে ছবিটি দেখানো হবে। এর পরদিন ফ্রান্সে এটি মুক্তি পাবে।
যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডায় করোনা মহামারিকালীন বক্স অফিস রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে ‘ফাস্ট অ্যান্ড ফিউরিয়াস নাইন’। মুক্তির প্রথম সপ্তাহে ৭ কোটি মার্কিন ডলার (৫৯৪ কোটি ১১ লাখ টাকা) ঘরে এনেছে ছবিটি। কোভিড-১৯ প্রাদুর্ভাব শুরুর পর মুক্তিপ্রাপ্ত সবচেয়ে ব্যবসাসফল ছবি এটাই। যুক্তরাজ্যসহ বিশ্বব্যাপী এর আয়ের পরিমাণ দাঁড়িয়ে গেছে ৪০ কোটি মার্কিন ডলার (৩ হাজার ৩৯৪ কোটি ৯৫ লাখ টাকা)। ছবিটিতে আরও অভিনয় করেছেন জন সিনা, শার্লিজ থেরন, কার্ডি বি, হেলেন মিরেন, নাতালি ইমানুয়েল।

আগামী ৬ জুলাই ৭৪তম কান উৎসবের পর্দা উঠবে। চলবে ১৭ জুলাই পর্যন্ত। প্রতিদিন রাত ৯টা ৩০ মিনিটে মাচি সৈকতে থাকবে চলচ্চিত্র প্রদর্শনী। ভূমধ্যসাগরের তীরে সবশ্রেণির দর্শক-শ্রোতা, উৎসবে অংশগ্রহণকারী এবং পর্যটকদের জন্য এই আয়োজন উন্মুক্ত। ফলে বিনামূল্যে উপভোগ করা যাবে বিখ্যাত কিছু ছবি। আসন খালি থাকা পর্যন্ত দর্শকদের সাগরপাড়ে কম্বলসহ বসতে দেওয়া হবে।

এবারের আসরে সিনেমা ডি লা প্লাজে রয়েছে গান, রাজনীতি, প্রেম, পর্বত অভিযানসহ নানান বিষয়ক ছবি। এছাড়া রক-ফ্লামেঙ্কো কনসার্ট উপভোগ করা যাবে ভূমধ্যসাগরের তীরে।

উৎসবের উদ্বোধনী দিন ৬ জুলাই রয়েছে হংকংয়ের ওঙ কার-ওয়াই পরিচালিত ‘ইন দ্য মুড ফর লাভ’-এর (২০০০) পুনরুদ্ধার সংস্করণ। আগামী ২১ জুলাই ফ্রান্সে প্রেমের ছবিটি পুনরায় মুক্তি পাবে।

১৯৭৩ সালের স্বর্ণ পাম জয়ী ‘স্কেয়ারক্রো’ দেখানো হবে ৭ জুলাই। আল পাচিনো, জেনে হ্যাকম্যান ও ফেই ডানাওয়ে অভিনীত ছবিটির প্রদর্শনীতে হাজির হবেন ৯৪ বছর বয়সী আমেরিকান পরিচালক জেরি শাৎজবার্গ।

কানে দু’বার স্বর্ণ পাম জয়ী সার্বিয়ার এমির কুস্টুরিচার ‘ব্ল্যাক ক্যাট, হোয়াইট ক্যাট’ (১৯৯৮) রয়েছে ৯ জুলাই। ২০০১ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত ‘আমেলি’ দেখানো হবে ১৬ জুলাই। এর প্রদর্শনীতে থাকবেন পরিচালক জ্যঁ-পিয়ার জুনো।

সমাপনী দিনে (১৭ জুলাই) সুরের মূর্ছনা ছড়াতে রয়েছে এবারের আসরের মূল প্রতিযোগিতা বিভাগের জুরি প্রেসিডেন্ট স্পাইক লি পরিচালিত “ডেভিড বায়ার্ন’স আমেরিকান উটোপিয়া”। স্কটিশ আমেরিকান সংগীতশিল্পী ডেভিড বায়ার্নের মঞ্চ পরিবেশনা মূর্ত হয়েছে এতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *