কাবুলে মার্কিন ড্রোন হামলায় একই পরিবারের ৬ শিশু নিহত

Share Now..

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে মার্কিন সামরিক বাহিনীর ড্রোন হামলায় ৯ জন নিহত হয়েছেন। নিহত ওই ৯ জন একই পরিবারের সদস্য ও তাদের মধ্যে ৬ জনই শিশু। আইএস-কের আত্মঘাতি বোমা হামলা ঠেকাতে এ হামলা চালানো হয়।

কাতার ভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আলজাজিরার বরাতে জানা যায়, নিষিদ্ধঘোষিত জঙ্গি সংগঠন ইসলামিক স্টেট খোরাসান প্রভিন্সের (আইএস-কে) সন্দেহভাজন বোমা হামলাকারীকে লক্ষ্য করে আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলে ড্রোন হামলা চালিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র।

এসময় বাড়িটিতে আগুন ধরে গেলে স্থানীয়রা নেভানোর চেষ্টা করেন। সেখানে নয় বেসামরিক নাগরিকের মৃত্যু হয়। নিহতের ভাই সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, হামলার শিকার প্রত্যেকে একই পরিবারের সদস্য। তারা খুব সাধারণ মানুষ। যাদের সাথে আইএসকে কিংবা দায়েশের কোনো সম্পর্ক নেই। তার ভাই পরিবার নিয়ে সেখানে বসবাস করতেন।

গত রবিবার কাবুলে ওই ড্রোন হামলা চালিয়েছিল যুক্তরাষ্ট্র। এ হামলার পর মার্কিন সেন্ট্রাল কমান্ডের পক্ষ থেকে বলা হয়, কাবুলের হামিদ কারজাই আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে আইএস-কে। আত্মরক্ষার জন্য ওই হামলা চালানো হয়েছে।
এদিকে রবিবার রাতে নিজেদের ভুল স্বীকার করে মার্কিন সামরিক বাহিনী জানায় যে, তাদের হামলায় বেসামরিক মানুষের হতাহতের ঘটনা ঘটেছে। নিরপরাধ মানুষের হতাহতের ঘটনায় যুক্তরাষ্ট্র গভীরভাবে ব্যথিত বলেও দাবি করেন মার্কিন সামরিক বাহিনীর সেন্ট্রাল কমান্ডের মুখপাত্র ক্যাপ্টেন বিল আরবান।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *