জেরুজালেমে ফের কনসুলেট খোলার পরিকল্পনায় বাইডেন, ইসরায়েলের সতর্কবার্তা

Share Now..

ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে কূটনৈতিক যোগাযোগে দীর্ঘদিন ঘাঁটি হিসেবে ব্যবহূত হয়ে আসা জেরুজালেমে ফের কনসুলেট খোলার মার্কিন ভাবনাকে ‘বাজে পরিকল্পনা’ অ্যাখ্যা দিয়েছে ইসরায়েল। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে আল জাজিরা।

ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষ বলেছে, এমন কিছু হলে তা নাফতালি বেনেটের নতুন সরকারের ভেতর অস্থিরতা তৈরি করতে পারে।

সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের পরিকল্পনা অনুযায়ী পুরো জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দিয়েছিলো যুক্তরাষ্ট্র। পরে তেল আবিব থেকে মার্কিন দূতাবাস জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়া হয়েছিলো।

পশ্চিম জেরুজালেমে অবস্থিত তাদের কনসুলেটকেও ওই পরিকল্পনার অন্তর্ভুক্ত করে নেওয়া হয়। গত কয়েক বছরে যুক্তরাষ্ট্রের যে কয়েকটি পদক্ষেপ ফিলিস্তিনিদের ক্ষিপ্ত করেছিল, তার একটি ছিলো মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়া।

ফিলিস্তিনিরা পূর্ব জেরুজালেমকে তাদের ভবিষ্যত্ স্বাধীন রাষ্ট্রের রাজধানী হিসেবে বিবেচনা করে আসছে। বাইডেন ফিলিস্তিনিদের সঙ্গে সম্পর্ক পুনঃস্থাপন, দুই রাষ্ট্র নীতি সমাধানকে সমর্থন এবং জেরুজালেমে ফের কনসুলেট খোলার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। সে মোতাবেক পরিকল্পনায় এগোচ্ছেন তিনি। তাতেই আপত্তি ইসরায়েলের।

ইসরায়েলি পররাষ্ট্রমন্ত্রী ইয়াইর লাপিদ এ প্রসঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, আমাদের মনে হচ্ছে এটি একটি বাজে পরিকল্পনা। জেরুজালেম ইসরায়েলের সার্বোভৌম রাজধানী। শহরটি শুধু আমাদের। আমরা জানি বাইডেন প্রশাসনের জেরুজালেম নিয়ে ভিন্ন পরিকল্পনা আছে। তবে এ বিষয়ে আমরা নিশ্চিত যে ইসরায়েলের যেকোনো ইস্যুতে যুক্তরাষ্ট্র আমাদের কথা শুনবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *