ঝিকরগাছায় আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের ঘর পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক

Share Now..

আফজাল হোসেন চাঁদ : যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলায় ভূমিহীন-গৃহহীনদের জন্য খাস জমিতে নির্মান কাজ চলমান ‘আশ্রয়ন-২ প্রকল্পের’ ঘর পরিদর্শন করলেন জেলা প্রশাসক মোঃ তমিজুল ইসলাম খান। শনিবার সকালে এই প্রকল্পের আওতায় ৩য় ফেজে নতুন ডিজাইনে নাভারনে নির্মানাধীন ৫ টি ঘরের নির্মাণ কাজের গুনগত মান ও খাস জমি নির্বাচন প্রক্রিয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন। উপকারভোগী ভূমিহীনরা লাখ টাকার জমি ও ঘর পেয়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন। এই প্রকল্পের ১ম ও ২য় ফেজে ঝিকরগাছায় ৬৬ শতক খাস জমিতে ৩৩ টি ঘর নির্মিত হয়েছে। এই প্রকল্পের ৩য় ফেজে ঝিকরগাছায় প্রায় ৩ একর খাস জমিতে মোট ১৩৩ টি ঘর নির্মিত হবে। প্রতিটি ঘরের নতুন ডিজাইনে আরসিসি কলাম, বেস ও লিনটেল দিয়ে এই ঘর গুলো নির্মিত হচ্ছে। ফলে ঘর গুলো আরো টেকসই হবে। এ পর্যায়ে ঘর গুলোর নির্মান ব্যয় প্রায় ২ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা। পর্যায়ক্রমে ঝিকরগাছার সকল ভূমিহীন ও গৃহহীনদেরকে জমি সহ এই ঘর গুলো মাননীয় প্রধানমন্ত্রী উপহার হিসেবে প্রদান করা হবে।
ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) এর প্রত্যক্ষ মনিটরিং এর মাধ্যমে উপজেলা প্রকৌশলীর কারিগরি নির্দেশনায় পিআইও এই ঘর গুলোর নির্মান কাজ করছেন। যশোর-২ (চৌগাছা-ঝিকরগাছা) আসনের জাতীয় সংসদ সদস্য, উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান, উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও ইউনিয়ন চেয়ারম্যানদের সমন্বয়ে গঠিত কমিটি উপজেলার ভূমিহীন-গৃহহীনদের বাছাই করছেন।
এটা একটি চলমান প্রক্রিয়া। ঝিকরগাছায় কোন ভূমিহীন- গৃহহীন থাকবে না। গদখালী ইউনিয়নের বারবাকপুর মৌজায় নির্মানাধীন ২৮ টি ঘরের কাজ পরিদর্শন করে জেলা প্রশাসক মহোদয় বিভিন্ন নির্দেশনা প্রদান করেছেন। তিনি প্রতিটি নির্মানাধীন ঘরের ডিজাইন ও স্পেসিফিকেশন অনুযায়ী নির্মান হচ্ছে কিনা তা যাচাই করেছেন। জেলা প্রশাসক মহোদয় নিয়মিত জেলার সকল উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড এভাবে সরেজমিনে পরিদর্শন করে থাকেন, যার ফলে যশোর জেলায় সকল উন্নয়ন প্রকল্প সুষ্ঠু ভাবে বাস্তবায়িত হয়ে থাকে।
এসময় জেলা প্রশাসক মহোদয়ের সফর সঙ্গী ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) তুষার কুমার পাল, ঝিকরগাছার উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ মাহবুবুল হক, সহকারী কমিশনার (ভূমি) ডাঃ কাজী নাজিব হাসান, যশোর ডিসি অফিসের ৬ জন বিজ্ঞ এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট, উপজেলা প্রকৌশলী শ্যামল কুমার বসু, গদখালীর ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা আয়ুব আলী সহ আরো অনেকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.