পাকিস্তানে ভয়াবহ ভূমিধস, নিহত ৩

Share Now..


পাকিস্তানে ভূমিধসে কমপক্ষে তিনজন নিহত হয়েছে, বেশ কয়েকজন আহত হয়েছে। এছাড়াও প্রায় দুই ডজন যানবাহন চাপা পড়ে আছে । দেশটির কর্মকর্তারা এ তথ্য জানিয়েছে। খবর আল-জাজিরা। খাইবার পাখতুনখোয়া প্রদেশের পাকিস্তান ও আফগানিস্তানের মধ্যে একটি সীমান্ত তোরখামের কাছে মঙ্গলবার ভোরে ভূমিধসের ঘটনা ঘটে। যা দুই দেশের মধ্যে বাণিজ্যের জন্য সবচেয়ে ব্যস্ত এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ট্রানজিট পয়েন্ট। ভূমিধসের সময় ১২০ টিরও বেশি ট্রাক পার হওয়ার অপেক্ষায় ছিল।

রেসকিউ ১১২২ ইমার্জেন্সি সার্ভিসের মুখপাত্র বিলাল ফাইজি এএফপি’কে বলেছেন, ‘আমরা তিনটি মৃতদেহ উদ্ধার করেছি এবং আটজন আহতকে হাসপাতালে নিয়েছি।‘

ফাইজি বলেন, ভূমিধসের পর প্রধান সীমান্ত ক্রসিং থেকে প্রায় ১২০ মিটার (১৩০ গজ) দূরে আগুন ছড়িয়ে পড়ে।
তিনি আরও বলেন, “এটি কোনো ছোট ভূমিধস নয় যা দ্রুত পরিষ্কার করা যায়। ধ্বংসস্তূপ অপসারণের জন্য আমাদের এখানে ৬০ জনেরও বেশি লোক কাজ করছে। মনে হচ্ছে পুরো পাহাড় ধসে গেছে,”

মুসলিমদের পবিত্র রমজান মাসে রোজা রাখার জন্য দিনের আগে চালক এবং তাদের সহকারীরা সেহরির খাবারের জন্য গ্যাসের চুলায় খাবার রান্না করছিলেন।
ফাইজি বলেন, ‘আগুন এখন নিয়ন্ত্রণে আছে। খনন ও অন্যান্য ভারী যন্ত্রপাতির সাহায্যে উদ্ধার অভিযান চলছে।’

ভূমিধসের কারণ তাৎক্ষণিকভাবে স্পষ্ট নয়, তবে একজন কর্মকর্তা বলেছেন সীমান্ত চৌকির পার্শ্ববর্তী পাহাড়ে একটি সম্প্রসারণ প্রকল্পে ভারী যন্ত্রপাতি কয়েক মাস ধরে ব্যবহার করা হচ্ছে।

রাতভর মুষলধারে বৃষ্টির কারণেও ভূমিধসের ঘটনা ঘটতে পারে বলে জানিয়েছেন কর্মকর্তা আলী রাজা।

আলী রাজা বলেন, কর্তৃপক্ষ ট্রাক এবং অন্যান্য যানবাহনের জন্য সীমান্ত ক্রসিং বন্ধ করে দিয়েছে, তবে এটি পায়ে চলাচলের জন্য উন্মুক্ত রয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *