প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ব্লেড দিয়ে জখম করার সেই যুবক আটক

Share Now..

এস আর নিরব যশোরঃ
যশোরের অভয়নগরে প্রেমের প্রস্তাবে রাজী না হওয়ায় স্কুল ছাত্রীর ঘাড়ে ব্লেড বসিয়ে জখম করার ঘটনায় সেই বখাটে যুবক রোহান (২১) কে অভয়নগর থানা পুলিশ গ্রেফতার করেছে।
পুলিশ বুধবার গভীর রাতে নওয়াপাড়া পৌরসভার ড্রাইভার পাড়ার একটি বাড়ি থেকে তাকে গ্রেফতার করে। স্কুল ছাত্রীর পিতা বিপ্র সরকার বাদী হয়ে ঐদিন রাতেই অভয়নগর থানায় রোহানের বিরুদ্ধে মামলা করে। আসামী রোহান উপজেলার বুইকরা গ্রামের ড্রাইভার পাড়ার হায়দার আলীর ছেলে।
গত বুধবার বিকালে নওয়াপাড়া মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী ঐশর্য্য সরকার স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পথে উপজেলার গরুহাট খোলার সামনে আসলে রোহান ঐ ছাত্রীর গলায় বেøড দিয়ে টান দেয়। সে তখন রক্তাক্ত জখম হয়।
ঐশর্য্য সরকারের বাবা বিপ্র সরকার জানান, রোহান নামের এক বখাটে যুবক দির্ঘদিন ধরে আমার মেয়েকে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। গত বুধবার বিকাল সাড়ে তিনটার সময় প্রতিদিনের মত স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার পতিমধ্যে গরুহাট খোলা নামক স্থানে আসলে রোহান আবারও প্রেমের প্রস্তাব দেয়। এতে সে রাজী না হওয়ায় রোহান ক্ষিপ্ত হয়ে আমার মেয়ের ডান কানের নিচে বেøড দিয়ে টান দিলে সে রক্তাক্ত জখম হয়। এরপর স্থানীয়রা উদ্ধার করে তাকে অভয়নগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করে। হাসপাতালে ভর্তির পর রোহান তার দলবল নিয়ে হাসপাতালে যেয়ে ভয় ভীতি দেখাতে থাকে। পরে আমি রাতে অভয়নগর থানায় একটি মামলা দায়ের করি। আমার পরিবার এখন নিরপত্তা হীনতায় ভুগছে।
আহত ঐশর্য্য সরকার জানায়, আমি আমার এক বান্ধবীর সাথে রাস্তা দিয়ে বাড়ি ফেরার পথে রোহান এসে প্রথমে আমার হাত ধরে টান দেয়। এরপর চুল ধরে টান দেয়। আমি কোনোমতে ছাড়িয়ে নিতে গেলে সে আমার ডান কানের নিচে ব্লেড দিয়ে টান দেয়।
সে আরও জানায়, রোহান আমাকে পছন্দ করে এবং দির্ঘদিন ধরে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল। আমি তার প্রস্তাবে সাড়া না দেওয়ায় সে এ ঘটনা ঘটিয়েছে।

এ বিষয়ে অভয়নগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) একেএম শামীম হাসান বলেন, এক স্কুল ছাত্রীকে ব্লেড দিয়ে আহত করার ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। এ ঘটনায় রোহানকে আটক করা হয়েছে। তার সাথে যারা ছিল তাদেরকেও আটকের চেষ্টা অব্যহত আছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *