বাইডেনকে শি’র হুঁশিয়ারি

Share Now..


যুক্তরাষ্ট্র ও চীনা নেতারা দুই ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে চলা ফোন কলে তাইওয়ানের বিষয়ে একে অপরকে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন চীনা প্রেসিডেন্ট শি জিনপিংকে বলেছেন, দ্বীপটির মর্যাদা পরিবর্তনে যেকোনো একতরফা পদক্ষেপের বিরোধিতা করবে যুক্তরাষ্ট্র।তবে তিনি যোগ করেছেন, তাইওয়ানের বিষয়ে মার্কিন নীতি পরিবর্তন হয়নি।

বেইজিং জানিয়েছে, শি বাইডেনকে এক-চীন নীতি মেনে চলতে বলেছেন এবং তাকে সতর্ক করা হয় যে “আগুন নিয়ে যে খেলবে, তাকে পুড়তে হবে”।

মার্কিন পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ বা প্রতিনিধি পরিষদের স্পিকার ন্যান্সি পেলোসির তাইওয়ান সফরের গুজবকে ঘিরে উত্তেজনা বেড়েছে।

দেশটির পররাষ্ট্র দফতর বলেছে , পেলোসি কোনো সফরের ঘোষণা দেননি, তবে চীন সতর্ক করেছে যে পেলোসি যদি এমন কোন সফরে যান তাহলে এর পরিণতি গুরুতর হবে।

গত সপ্তাহে বাইডেন সাংবাদিকদের বলেছেন, “সেনাবাহিনী মনে করছে এটি কোন ভালো আইডিয়া নয়”, তবে কোন সফরের বিরুদ্ধে চীনের এমন বক্তব্যকে “সম্পূর্ণ অকেজো এবং অপ্রয়োজনীয়” বলে অভিহিত করেছে হোয়াইট হাউস।

পেলোসি, যিনি ভাইস-প্রেসিডেন্টের পরে প্রেসিডেন্ট হওয়ার তালিকায় রয়েছেন, তিনি ১৯৯৭ সালের পর তাইওয়ানে ভ্রমণকারী সর্বোচ্চ ক্ষমতাধর প্রথম কোন মার্কিন রাজনীতিবিদ হবেন।

বৃহস্পতিবারের ফোন কলের সময় বাইডেন এবং শি তাদের সম্ভাব্য মুখোমুখি বৈঠকের বিষয়েও আলোচনা করেছেন, বাইডেন প্রশাসনের একজন সিনিয়র কর্মকর্তা দ্বিপাক্ষিককে “প্রত্যক্ষ” এবং “সৎ” হিসাবে বর্ণনা করেছেন।

বাইডেন যখন মার্কিন ভাইস-প্রেসিডেন্ট ছিলেন, তখন তিনি ২০১৫ সালে চীনা নেতার যুক্তরাষ্ট্র সফরের সময় শি-কে আতিথেয়তা করেছিলেন। কিন্তু বাইডেন প্রেসিডেন্ট হওয়ার পর তারা ব্যক্তিগতভাবে দেখা করেননি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *