মানবদেহে শূকরের হৃৎপিণ্ড প্রতিস্থাপন, সুস্থ হয়ে উঠছেন রোগী

Share Now..

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের এক ব্যক্তির শরীরে শূকরের হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপন করার পর তিনি ধীরে ধীরে সুস্থ হয়ে উঠছেন। বিশ্বে প্রথমবারের মতো এমন ঘটনা ঘটলো। চিকিৎসকরা এটিকে যুগান্তকারী পদক্ষেপ হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। খবর প্রকাশ করেছে বিবিসি, আলজাজিরা, এনডিটিভি ও বার্তা সংস্থা রয়টার্স।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত শুক্রবার (৭ জানুয়ারি) ডেভিড বেনেট নামে ওই ব্যক্তির শরীরে সফলভাবে শূকরের হৃদপিণ্ড প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। সার্জারিতে ৭ ঘণ্টা সময় নেন চিকিৎসকরা। ইতিহাসের অংশ হয়ে যাওয়া পরীক্ষামূলক এই পদক্ষেপের তিনদিন পরও ৫৭ বছর বয়সী বেনেট বেশ ভালো আছেন।
স্থানীয় সময় সোমবার (১০ জানুয়ারি) বাল্টিমোরের ইউনিভার্সিটি অব মেরিল্যান্ড মেডিকেল স্কুল এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, প্রথমে জিনগত দিক দিয়ে শূকরের হৃদপিণ্ডটিতে পরিবর্তন আনা হয়। এর পরই ডেভিড বেনেটের শরীরে তা প্রতিস্থাপন করা হয়েছে। আপাতত চিকিৎসকরা তার দিকে সার্বক্ষণিক নজর রাখছেন।

বিশেষজ্ঞ ও চিকিৎসকদের দাবি, এই ঘটনা প্রাণীদেহ থেকে মানবদেহে অঙ্গ প্রতিস্থাপনের ক্ষেত্রে মাইলফলক। অস্ত্রোপচারকারী চিকিৎসক বার্টলে গ্রিফিথ বলেন, ‘এটি যুগান্তকারী অস্ত্রোপচার। অঙ্গের অভাবজনিত সমস্যা সমাধানের পথে আমরা আরও একধাপ এগিয়ে গেলাম।’

সতর্কতার সঙ্গে আগাচ্ছেন জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘আমরা আশাবাদী বিশ্বে এই প্রথম এমন অস্ত্রোপচারের ফলে ভবিষ্যতে রোগীদের সামনে নতুন দিগন্ত উন্মোচিত হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.