মেয়াদ শেষ হলেই পদ ছাড়তে হবে মেয়র-কাউন্সিলরদের

Share Now..

পাঁচ বছর মেয়াদ শেষ হলেই পৌরসভার মেয়র-কাউন্সিলদের পদ ছাড়তে হবে। পৌরসভার মেয়র-কমিশনারদের দায়িত্ব ছেড়ে দেওয়ার বিধান রেখে স্থানীয় সরকার আইন-২০২১ এর খসড়া নীতিগত ও চূড়ান্ত অনুমোদন দিয়েছে মন্ত্রিসভা।

সোমবার (৪ অক্টোবর) মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে এ তথ্য জানান মন্ত্রীপরিষদ বিভাগের সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে গণভবন থেকে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও সচিবালয়ের মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ থেকে মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা বৈঠকে যোগ দেন।

নতুন এ আইনে বলা হয়েছে, পাঁচ বছর মেয়াদ শেষ হলেই পৌরসভার মেয়র-কাউন্সিলদের পদ ছাড়তে হবে। মেয়াদ পূর্ণ হলে একজন প্রশাসক বা সরকার মনোনীত ব্যক্তির অধীনে ছয় মাসের মধ্যে নির্বাচন শেষ করে নতুন মেয়রের কাছে দায়িত্ব বুঝিয়ে দেওয়া হবে। এছাড়া যুক্তিসঙ্গত কারণ ছাড়া কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন-ভাতা ১২ মাস বকেয়া থাকলে পৌরসভা বাতিল হয়ে যাবে। আইনটি সংসদে পাস করার পর তা কার্যকর হবে।

খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, পৌরসভার মেয়রদের মেয়াদ ৫ বছর পূর্ণ হলে তার মেয়াদ শেষ হবে। এরপর যদি নির্বাচন করা সম্ভব না হয় তাহলে ৬ মাসের জন্য প্রশাসক বা সরকার মনোনীত যোগ্য ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে পারবে সরকার। তবে প্রশাসকের মেয়াদ ৬ মাসের বেশি হবে না।

সংশোধিত আইন অনুযায়ী, পৌরসভায় প্রশাসক নিয়োগ দেওয়ার ছয় মাসের মধ্যে নির্বাচন দিতে হবে। পৌরসভার ‘সচিব’-এর নাম পরিবর্তন করে ‘পৌর নির্বাহী কর্মকর্তা’ করা হচ্ছে বলেও জানান মন্ত্রীপরিষদ সচিব।
তিনি বলেন, বিদ্যমান আইনের সুযোগ নিয়ে অনেক এলাকার পৌর মেয়ররা মেয়াদ শেষ হওয়ার পর নিজেদের লোকজন দিয়ে বিভিন্ন উপলক্ষে আদালতে মামলা ঠুকে দেন। এতে মামলা নিষ্পত্তির আগে পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠানের সুযোগ থাকে না। আর মামলা বছরের পর বছর চলার সুযোগে আগের মেয়রই দায়িত্ব পালন করেন। এমন সমস্যা থেকে উত্তরণে পৌরসভায় প্রশাসক নিয়োগের প্রস্তাব করা হয়েছে। আইনটি পাস হলে পৌরসভায় প্রশাসক নিয়োগের সুযোগ তৈরি হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.