শুটিং বাতিল করে প্রতিবাদ জানালেন প্রসেনজিৎ

Share Now..

টলিউডের ‘মিস্টার ইন্ডাস্ট্রি’ হিসেবে সম্বোধন করা হয় তাকে। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায় মানেই পেশাদারিত্ব। সাক্ষাৎকার হোক বা শুটিং, একেবারে সঠিক সময়েই হাজির হয়ে যান ক্যামেরার সামনে। সেই প্রসেনজিৎ শুটিং না করেই ফিরে গেলেন বাড়িতে। এখন প্রশ্ন উঠেছে, কেনো এমনটি করলেন এই অভিনেতা।

ভারতীয় গণমাধ্যম সূত্রে জানা গেছে, ফেডারেশন অফ সিনে টেকনিশিয়ানস অ্যান্ড ওয়ার্কাস অফ ইস্টার্ন ইন্ডিয়ার সঙ্গে আলোচনা না করেই শুটিংয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। ফেডারেশনের কোনও কলাকুশলী সেখানে উপস্থিত ছিলেন না। আর তা জানতে পেরেই শুটিং বাতিল করে দেন প্রসেনজিৎ। ফেসবুকে সিনে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে এর জন্য অভিনেতাকে ধন্যবাদ দেওয়া হয়েছে।
মূলত, ফেডারেশনের পোস্টের কারনে খবরটি প্রকাশ্যে আসে। সেখানে জানানো হয়, একটি নামী ব্র্যান্ডের বিজ্ঞাপনের শুটিং ছিল সেটি। লাইট-ক্যামেরা রেডিই ছিল, শুধু অ্যাকশন বলার অপেক্ষায় ছিলেন সকলে। কিন্তু ফ্লোরে গিয়ে প্রসেনজিৎ জানতে পারেন ফেডারেশনের সঙ্গে কোনওরকম আলোচনা না করেই শুটিংয়ের আয়োজন হয়েছিল। ফেডারেশনের কোনও কলাকুশলীকেও রাখা হয়নি ফ্লোরে। তখনই বিষয়টি তিনি ফেডারেশনকে জানান। সিনে ফেডারেশনের কলাকুশলীদের নিয়েই শুটিং করতে চান। আর তার জন্য অন্য একটি ডেট দিতে প্রস্তুত আছেন বলেই জানান টলিউডের সুপারস্টার।খবরটি জানিয়ে ফেডারেশনের পক্ষ থেকে লেখা হয়, আমরা সাধুবাদ জানাই বুম্বাদার এই মহানুভবতাকে। অনেকেই এখন ক্ষমতার অলিন্দে বসে প্রতিনিয়ত কলাকুশলীদের সমালোচনা করেন, বিপদের দিনে পাশে দাঁড়িয়ে কলাকুশলীদের সাথে দুঃখ কষ্ট ভাগ করে নেওয়ার ন্যূনতম প্রয়োজনীয়তা ও বোধ করেন না, ভুলে যান যে তারাও কিন্তু কলাকুশলীদের উপরেই নির্ভরশীল! অথচ সৌজন্যের ধার ও ধারেন না এই মানুষগুলো। শ্রী প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়ের কাছে আমরা কৃতজ্ঞ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *