শৈলকুপার ইউপি সদস্য ৪ বছর ধরে ইরাকে সম্মানী ভাতা কার পকেটে ?

Share Now..


স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদঃ
ঝিনাইদহের শৈলকুপায় ৯নং মনোহরপুর ইউনিয়নের সদস্য জিন্নাহ আলম চার বছর বিদেশ থাকলেও তার ভাতা নিয়মিত উত্তোলন করা হচ্ছে। এ নিয়ে পরিষদের অন্যান্য সদস্যদের মধ্যে চাপা ক্ষোভ বিরাজ করছে। অভিযোগ পাওয়া গেছে অতি গোপনে মনোহরপুর ইউনিয়নের সচিব ওয়াহিদুজ্জামান ব্যক্তিগত প্রভাব খাটিয়ে ওই ইউপি সদষ্যের ভাতার টাকা তুলে আত্মসাৎ করে যাচ্ছেন। এলাকাবাসি সুত্রে জানা গেছে, চেয়ারম্যানের সাথে বনিবনা না হওয়ায় জিন্নাহ আলম বিদেশে পাড়ি জমাতে বাধ্য হন। জিন্নাহ আলমের স্ত্রী পলি খাতুন জানান চেয়ারম্যান মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নুর সঙ্গে রাজনৈতিক মতপার্থক্য না হওয়ার কারণে তার স্বামী চার বছর আগে বিদেশে চলে গেছেন। তিনি বলেন স্বামী বিদেশ যাওয়ার পর সংসার চালাতে না পেরে একদিন চেয়ারম্যানের দপ্তরে গেলে তিনি বহু স্থানে সাক্ষর করিয়ে ১৫ হাজার টাকা দেন। এরপর থেকে আর কোন টাকা পায়নি। স্বামী জিন্নাহ আলমের প্রাপ্ত সরকারী ভাতা কিভাবে উত্তোলন করা হয় তা তিনি জানেন না বলে জানান। তবে সচিব ওয়াহিদুজ্জামান জানান জিন্নাহ আলম জানান, মেম্বরের সরকারী ভাতা স্ত্রী পলি খাতুনকে বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে। চেয়ারম্যান মোস্তফা আরিফ রেজা মন্নু বলেন, জিন্নাহ আলমের সাথে মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তার স্ত্রীর কাছে সরকারী অর্থ বুঝিয়ে দেওয়া হয়। এলাকার একটি কুচক্রি মহল রাজনৈতিক প্রতিহিংসা পরায়ন হয়ে এ বিষয়টি নিয়ে ঘোলা পানিতে মাছ শিকারের চেষ্টা করছে বলে তিনি অভিযোগ করেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.