স্থগিত অ্যাকাউন্ট চালু করতে ফেসবুকের কাছে ট্রাম্পের আবেদন

Share Now..


স্থগিত হয়ে যাওয়া ফেসবুক অ্যাকাউন্টটি পুনরায় চালু করতে মেটার কাছে অনুরোধ করেছেন সাবেক মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আবারও ফেসবুকে যেন তাকে অ্যাক্সেস দেওয়া হয় এমন অনুরোধ করার পেছনে যুক্তি হিসেবে ২০২৪ সালের নির্বাচনের কথা বলেছেন তিনি। ব্রিটেনের গার্ডিয়ান পত্রিকার খবরে বলা হয়েছে, আগামী নির্বাচনে লড়াই করার জন্য ট্রাম্প জোর প্রস্তুতি নিচ্ছেন। প্রচারণা চালানোর জন্য যুক্তরাষ্ট্রে ফেসবুক অনেক বড় ভূমিকা পালন করে বলে ট্রাম্পের শিবির মনে করে। যদিও একসময় ট্রাম্প ফেসবুককে তাচ্ছিল্য করে বলেছিলেন, এটি কোনো কাজের জিনিস না এবং তিনি বিকল্প সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম তৈরি করবেন।

সাবেক প্রেসিডেন্টকে এ কারণে ফেসবুক থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল যে, তার কিছু সমর্থক ইউএস ক্যাপিটলে হামলা চালিয়ে ২০২০ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জো বাইডেনের জয়ের বিরোধিতা করেছিল। একটি চিঠিতে ট্রাম্পের উপদেষ্টারা ফেসবুকের প্যারেন্ট প্রতিষ্ঠান মেটাকে বলেছেন যে এই নিষেধাজ্ঞা জনসাধারণের মতপ্রকাশের অধিকারকে বাধা দিচ্ছে। তাই এটি বাতিল করা উচিত।

এদিকে মেটা জানিয়েছে, ট্রাম্পের আবেদনের ব্যাপারে তারা আগামী সপ্তাহের মধ্যে একটি সিদ্ধান্ত ঘোষণা করবে।

উল্লেখ্য, ২০২১ সালের ৬ জানুয়ারি ক্যাপিটলে হামলার এক দিন পর ট্রাম্পকে ফেসবুক এবং টুইটার থেকে নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। ট্রাম্প তার সমর্থকদের তার টুইটার অ্যাকাউন্ট ব্যবহার করে ক্যাপিটলের কাছে জমায়েত হওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

হামলার আগে, তিনি একটি বক্তৃতায় সমর্থকদের ‘নরকের মতো লড়াই করার’ আহ্বান জানান। ট্রাম্প তার টুইটার অ্যাকাউন্ট ফিরে পেয়েছেন গত বছর ইলন মাস্ক কোম্পানিটি অধিগ্রহণ করার পর। টুইটারে এবং ফেসবুকে ট্রাম্পের যথাক্রমে ৪৪ মিলিয়ন এবং ৩৪ মিলিয়ন ফলোয়ার রয়েছে। আগের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের সময় ট্রাম্প টুইটার এবং ফেসবুকের ব্যাপক ব্যবহার করেছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *