হাতিয়ায় বেড়িবাঁধ ভেঙে লক্ষাধিক মানুষ পানিবন্দি, লোকালয়ে হরিণ

Share Now..


ঘুর্ণিঝড় ইয়াস ও পুর্ণিমার প্রবল জোয়ারে বেড়িবাঁধ ভেঙে দ্বীপ উপজেলা হাতিয়ার চরইশ্বর, সুখচর, সোনাদিয়া, হরনী, চানন্দী ও নিঝুমদ্বীপ ইউনিয়নের লক্ষাধিক লোক পানিবন্দি হয়ে পড়েছে। নিঝুমদ্বীপের ব্যাপক এলাকা পানিতে নিমজ্জিত থাকায় বনের হরিণ লোকালয়ে এসে পড়েছে। এসব এলাকার অধিকাংশ প্রজেক্ট ও পুকুরের মাছ ভেসে গেছে এবং কয়েক হাজার একর জমির মরিচসহ রবিশস্য নষ্ট হয়ে গেছে। পানিবন্দি এলাকার লোকজনের রান্নাবান্না ব্যাহত হওয়ায় এরা শুকনো খাওয়ারের ওপর নির্ভর করে দিনাতিপাত করছেন। এছাড়া প্রবল জোয়ারে নিঝুমদ্বীপের প্রধান সড়কের (চোয়াখালী এলাকা) একটি ব্রিজ ভেঙে ভেসে যাওয়ায় নিঝুমদ্বীপের একপ্রান্ত থেকে অপর প্রান্তের লোকজনের চলাচল বন্ধ হয়ে পড়েছে।

হাতিয়া উপজেলার ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা পরিদর্শন করে সিপিপির সেচ্ছাসেবক দিয়ে ত্রান বিতরণ করেছেন হাতিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরান হোসেন। তিনি আরও জানান, পানিবন্দি ও ক্ষতিগ্রস্থ লোকদেরকে শুকনো খাবার দেওয়ার জন্য প্রতিটি ইউনিয়নে ২ লাখ ৫০ হাজার টাকা করে বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। এছাড়া ইতো মধ্যে ক্ষতিগ্রস্থ এলাকায় শিশু খাদ্য ও গো খাদ্য বিতরণ করা হয়েছে।

এদিকে, জোয়ারের তীব্রতা বৃদ্ধি পাওয়ায় ও নদীর কুলের জোয়ার প্রবল বেগে আছড়ে পড়ায় নদী ভাঙনে চরম আকার ধারণ করেছে। অপর দিকে দুর্যোগপূর্ণ আবহাওয়ার কারণে হাতিয়া দ্বীপের সঙ্গে সব প্রকার নৌযান চলাচল বন্ধ থাকায় ভোগান্তিতে পড়েছে দুপাড়ের আটকে পড়া লোকজন।

Leave a Reply

Your email address will not be published.